খুব সহজেই জেনে নিন কিভাবে করবেন ঘাড় ও গলার ত্বকের যত্ন

আমাদের প্রায় সবারই সাজগোজের পর দেখা যায় মুখের ত্বকের উজ্জ্বলতার সঙ্গে ঠিক যেন মিলছে গলা ও ঘাড়ের ত্বকের রং। মুখ ও হাত-পায়ের যত্নে কত কিছুই না করছি আমরা । হয়তো সেই মুহূর্তে মেকআপের প্রলেপ দিয়ে দূর করলেন ত্বকের নিষ্প্রাণ ভাবটুকু। কিন্তু সব সময়ই যদি এমন অবহেলা চলে তাহলে তা শুধু ত্বককে নিষ্প্রাণ করেই দেবে না, চর্মরোগের কারণও হতে পারে সাধারণত শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় গলা ও ঘাড়ের ত্বকে খুব দ্রুত ময়লা জমে। এর কারণ হিসেবে বাইরের ধুলা বালি ত আছেই এ ছাড়াও প্রতিদিন আঁচড়ানোর ফলে চুলের ময়লাগুলোও ঘাড়ের ত্বকে পড়ে। আর তাই গোসলের সময় ঘাড় ও গলার ত্বক ভালো করে পরিষ্কার করে নেওয়া উচিত । জেনে নিন কিভাবে করবেন ঘাড় ও গলার ত্বকের যত্ন

গলার যত্ন

গলার যত্ন

১) গোসলের আগে
রোজ সকালে গোসলের আগে গলা, ঘাড় আর পিঠে সূর্যমুখী বা তিসির তেল ম্যাসাজ করে নিতে পারেন। এরপর একটা ভেজা পাতলা কাপড় দিয়ে ঘষে ঘষে ত্বক পরিষ্কার করে নিন। এ ছাড়াও ত্বকের মৃতকোষ তুলতে এই টাইপ এর স্ক্রাব ব্যবহার করতে পারেন যেমন; সপ্তাহে এক দিন পাকা কলার সঙ্গে চিনি মিশিয়ে নিন। এবার চিনিটা যতক্ষণ পর্যন্ত না গলে যাচ্ছে ততক্ষণ ভালো করে পিঠ ও ঘাড়ে ম্যাসাজ করতে থাকুন। তবে এই মিশ্রণটি গলার ত্বকে ব্যবহার না করাই ভালো। যাঁদের ত্বক তৈলাক্ত তাঁরা চিনির সঙ্গে পরিমাণমতো মসুর ডাল বাটা, ১ টেবিল চামচ লেবুর রস আর টমেটোর রস মিশিয়ে একইভাবে ব্যবহার করতে পারেন। আধা কাপ টমেটো বাটার সাথে ১ টেবিল চামচ ভিনেগার মিশিয়ে লাগালে উজ্জ্বল হবে গলার ত্বক।

২)ত্বকের দাগ দূর করতে
যাদের দীর্ঘদিনের অযত্ন আর অবহেলায় ঘাড় ও পিঠে কালো দাগ পড়েছে তারা সপ্তাহে এক দিন ঘরোয়া উপায়ে শুষ্ক ত্বকের জন্য ৩ টেবিল চামচ চালের গুঁড়ার সঙ্গে ২ টেবিল চামচ টকদই, ১ টেবিল চামচ মুলতানি মাটি, কমলালেবুর খোসা এবং অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করুন। এবার হাত দুটো ভিজিয়ে নিয়ে ১০ মিনিট ভালো করে ম্যাসাজ করে নিন। তৈলাক্ত ত্বকের দাগ দূর করতে দুধের মধ্যে ভিজিয়ে রাখা মসুর ডাল ভালো করে বেটে নিন। এবার এর সঙ্গে কাঁচা হলুদ আর টমেটোর রস মিশিয়ে দাগের ওপর হাত দিয়ে ম্যাসাজ করে নিন।

৩) ঘামাচি বা র‍্যশ উঠছে?
গরমের এই সময়টায় অনেকের ঘাড়ে ও পিঠে ঘামাচি আর র্যাশ দেখা যায়। র‌্যাশ হলে নিমপাতা দিয়ে ফুটানো আধা কাপ পানির সঙ্গে আধা কাপ লেবুর রস এবং তিন টেবিল চামচ বেসন মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে ১০ মিনিট অপেক্ষা করুন। এরপর গোসল করে নিন। এ ছাড়াও শঙ্খ গুঁড়ার সঙ্গে সামান্য মুলতানি মাটি মিশিয়ে র্যাশের ওপর লাগালে উপকার পাবেন। এদিকে যাঁদের পিঠে ঘামাচি ওঠার সমস্যা আছে, তাঁরা প্রতিদিন নিমপাতা দিয়ে ফুটানো পানিতে গোসল করে নিন। নিমপাতা দিয়ে জ্বাল দেওয়া পানি বরফ জমিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। বাইরে থেকে ফিরে এই বরফের টুকরো ঘাড় ও পিঠের ত্বকে ঘষে নিন, উপকার পাবেন।

You may also like...