প্রাকৃতিক রূপচর্চায় টমেটোর ব্যবহার

আমাদের সবার বাড়িতেই রান্নার জন্য টমেটো থাকেই ।শুধু দেখতেই নয়, গুণেও সেরা টকটকে লাল টমেটো। শারীরিক পরিশ্রমের পর রস যেকোনো কোমল পানীয়ের চেয়ে বেশি উপকারী। সবজি হিসেবে টমেটোর জুড়ি মেলা ভার। এটি যেমন কাঁচা খাওয়া যায়, ঠিক একইভাবে রান্না সুস্বাদু করার ক্ষেত্রে ব্যবহূত হয়। সালাদে বা মুড়ি মাখানোর সময় টমেটো অতুলনীয়। টমেটো সসের তো কথাই নেই। টমেটোতে বিভিন্ন ভিটামিন এবং এনজাইম রয়েছে যা স্বাস্থ্যের জন্য যতটা গুরুত্বপূর্ণ তারচেয়েও অনেক বেশি উপকারী সুন্দর আর মোলায়েম ত্বকের জন্য। তাই আমরা খাওয়ার পাশাপাশি রূপচর্চার কাজেও ব্যবহার করতে পারি। তাহলে জেনে নিন প্রাকৃতিক রূপচর্চায় টমেটোর ব্যবহার।

১) উজ্জ্বল দেখাতে :
ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়াতে দই, হলুদ এবং টমেটোর একটি মিশ্রণ প্রতিদিন সকালে মুখে লাগাতে পারেন। এতে করে মুখে থাকা যেকোনো দাগ নির্মূল করে ত্বককে উজ্জ্বল দেখাতে সহায়তা করবে।

২) দাগমুক্ত ত্বকের জন্য :
অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ টমেটো দাগমুক্ত ত্বকের জন্য বেশ উপকারী। এর জন্য আপনি যেভাবে ব্যবহার করবেন, ২ কাপ পানিতে ২টি টমেটো এবং ২ চা চামচ মধুর একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। তৈরি মিশ্রণটি প্রতিদিন সকালে খালি পেটে খেয়ে ফেলুন। মিশ্রণটি খাওয়ার ৩০-৪০ মিনিট পর সকালের নাস্তা করুন।

৩) পরিস্কার মাথার ত্বক পেতে :
অনেক সময় দেখা যায় যে মাথার ত্বকে থাকা বিভিন্ন ধূলোবালি এবং ময়লার কারণে দুর্গন্ধ ও অপরিস্কার হয়ে যায় যা সাবান বা শ্যাম্পু কিছুতেই যেতে চায় না। এমন পরিস্থিতিতে টমেটো দিয়ে তৈরি একটি মিশ্রণ ব্যবহার করতে পারেন। এতে করে পরিস্কার ও দুর্গন্ধমুক্ত হবে আপনার মাথার ত্বকটি।

টমেটোর ব্যবহার

টমেটোর জাদুকরী ব্যবহার

৪) মসৃণ ত্বকের জন্য :
মসৃণ আর মোলায়েম ত্বকের জন্য টমোটো অত্যন্ত উপকারী একটি ফল। প্রতিদিন নিয়ম করে টমেটো খেলে স্বাস্থ্যকর একটি মসৃণ ত্বক পাওয়া সম্ভব যা দামী প্রসাধনী ব্যবহারেও সম্ভব না।

৫) রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়
টমেটোতে রয়েছে ভিটামিন-সি, ভিটামিন-এ, পটাসিয়াম ও ফলিক অ্যাসিড। ভিটামিন-সি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে তোলে ত্বক ও চোখ ভালো রাখার জন্য জরুরি ভিটামিন-এ। আর মাসল ক্র্যাম্পের জন্য উপকারী পটাশিয়াম। টমেটোতে এই সব উপাদান থাকায় যাদের রক্তে হোমোসিস্টেনের মাত্রা (এক ধরনের অ্যাসিড) বেশি তাদের জন্য টমেটো উপকারী।

৬) এছাড়াও
-টমেটো রক্ত পরিষ্কার রাখে।

-সিরোসিস অব লিভার প্রতিরোধ করে। গলস্টোনে সমস্যাতেও টমেটো ভালো কাজ দেয়।

-টমেটো ন্যাচারাল অ্যান্টিসেপ্টিক। তাই ইনফেকশন রোধ করে।

– ব্লাড কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে হার্টের রোগ প্রতিরোধ করতে পারে।

You may also like...