এই প্রখর গরমে আপনার চাই একটু স্নিগ্ধ স্নান!

আমরা কেবল একটু স্বস্তির খোঁজে একবার নয় একাধিক বারও স্নান করি । এরকম গরমে আমরা সবাই নিজের দেহ ও মনকে একটু শান্তি দেওয়ার জন্যই বার বার স্নান করি , আসুনে জেনে নেয়া যাক কিছু টিপস, যাতে করে এই গরমে স্নানের সময় মিলবে প্রশান্তি এবং তা আপনার জন্য স্থায়ীও হবে অনেকটা সময়।
– গোসলের পানি আগে থেকে ধরে রাখুন বালতিতে। এই গরমে সকালের পরেই ট্যাঙ্কির পানি তপ্ত আগুন হয়ে ওঠে। সেই পানি দিয়ে গোসল করলে প্রশান্তি দূরে থাক, ন্যূনতম আরামও মিলবে না।

girl bath

girl bath

– পানি আরও একটু ঠাণ্ডা করতে চাইলে মিশিয়ে নিতে পারেন কয়েক টুকরো বরফ।
– গরম থেকে ফিরেই স্নান করবেন না। তাতে আরাম তো মিলবেই না, উলটো ঠাণ্ডা- গরম লেগে অসুখ হয়ে যেতে পারে।
– স্নানের সময় মেনথল সাবান বা জীবাণু নাশক কোনও সাবান ব্যবহার করুন বিউটি সপের পরিবর্তে।
– অনেকে ভাবেন যে ভেজা চুলে থাকলে বুঝি স্নানের রেশটা স্থায়ী হবে। এটা ভীষণ একটা ভুল ধারনা। গোসল সেরে অবশ্যই চুল শুকিয়ে নিন ভালো করে।– স্নান শেষে কিছুক্ষণ ফ্যানের নিচে দাঁড়িয়ে থাকুন। শরীর ভালো করে শুকালে তবেই লোশন বা ক্রিম লাগান।
– গোসলের পর ক্রিম বা লোশনের বদলে গ্লিসারিন ব্যবহার করতে পারেন সম পরিমাণ পানির সাথে মিশিয়ে। তাদের ত্বক খুব তৈলাক্ত তাদের কিছুই ব্যবহারের দরকার নেই।
– স্নানের পানিতে মিশিয়ে নিতে পারেন কর্পূর। ঠাণ্ডা মিলবে।a
-পানিতে মিশাতে পারেন একটু গোলাপ পানি আর নিম পাতাও। শরীরে সৌরভ ছড়িয়ে তো যাবেই, সাথে দূরে থাকবে জীবাণু। আর হবে না চর্মরোগ।– চুলে বেঁধে বা খোঁপা করে স্নান করেন অনেকে। এটা করবেন না। চুল ভালো করে বাঁধন খুলে আচড়ে নিন। তাতে পানি ভালো করে চুলের গোঁড়ায় ভালো করে পানি যাবে।- ভালো করে পানি ঢেলে স্নান সারুন। মাথায় আর শরীরে সমান ভাবে পানি দিন, যাতে শরীরের বাড়তি তাপমাত্রা ধুয়ে যায় পানির সাথে।

You may also like...