প্রাকৃতিক রূপচর্চায় হলুদের ব্যবহার

আমাদের ত্বকে সমস্যা থাকলে নিজেকে আয়নায় দেখে অনেক সময়ই মন খারাপ হয়ে যায় । যদিও মানুষের বাহ্যিক সৌন্দর্যের চাইতে অভ্যন্তরীণ সৌন্দর্য অনেক বেশি জরুরী, কিন্তু আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় বাহ্যিক সৌন্দর্য অনেক মূল্য রাখে যা আমরা চাইলেও ভুলতে পারি না। এর পাশাপাশি বাহ্যিক সৌন্দর্য আত্মবিশ্বাস বাড়ায় বলে অনেকেই নিজেকে সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করতে চান। শুধুমাত্র হলুদের সঠিক ব্যবহার আপনার ত্বকের ৪ ধরণের সমস্যা দূর করে আপনাকে রাখবে লাবণ্যময়ী চিরকাল।

১) ব্রণের সমস্যা দূর করতে হলুদ
পরিমাণ মতো হলুদ গুঁড়ো নিয়ে এতে সামান্য পানি ও লেবুর রস দিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ব্রণ আক্রান্ত স্থানে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। এরপর পানি দিয়ে আলতো ঘষে তুলে নিন। ব্রণ বৃদ্ধি এবং লালচে ভাব কমে যাবে একেবারেই।

হলুদের ব্যবহার

রূপচর্চায় হলুদের ব্যবহার

২) ত্বকের বয়সের ছাপ দূর করতে হলুদ
হলুদ ত্বক থেকে বয়সের ছাপ দূর করতে বিশেষভাবে কার্যকরী। সমান পরিমাণে হলুদ গুঁড়ো ও বেসন একসাথে মিশিয়ে এতে পানি বা দুধ বা টকদই মিশিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে পুরো মুখে লাগান। শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে আলতো ঘষে ঘষে তুলে ফেলুন। ব্যস, ফলাফল আপনি নিজেই টের পাবেন।

৩) ব্রণের ক্ষত দূর করতে হলুদ
ব্রণের দাগ তুলতে হলুদের জুড়ি নেই। শুধুমাত্র হলুদে সামান্য পানি মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে সরাসরি ব্রণের দাগ ও ক্ষততে লাগিয়ে রাখুন ১৫ মিনিট। এরপর পানিতে দিয়ে ঘষে তুলে ফেলুন। নিয়মিত ব্যবহারে দূর করতে পারবেন ত্বকের ক্ষত ও দাগ।

৪) তৈলাক্ত ত্বকের তেলতেলে ভাব দূর করতে হলুদ
সমপরিমাণ হলুদ ও চন্দনগুঁড়ো একসাথে মিশিয়ে পরিমাণ মতো কমলালেবুর রস দিয়ে পেস্টের মতো তৈরি করে দিন। এই পেস্ট পুরো মুখে ভালো করে লাগিয়ে রাখুন মাত্র ১০ মিনিট। এরপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে মুখ শুকিয়ে নিন। ব্যস, তেলতেল ভাব অনেকটা কমে আসবে নিয়মিত ব্যবহারে।

You may also like...